চোখের নিচের কালো দাগ ও ফোলাভাব - দূর করার সহজ উপায় জেনে নিন

প্রিয় পাঠক আমরা অনেক সময় দেখি আমাদের চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে এবং ফুলে যায় কিন্তু আমরা হয়তো জানি না যে এই কালো দাগ কেন পরে  এবং ফুলে যায়। তাই আমরা এই আর্টিকেলে আজকে আলোচনা করব চোখের নিচে কালো দাগ পরার কারণ ও ফোলাভাব এবং চোখে নিচে কালো দাগ দূর করার সহজ উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত ।


তাহলে চলুন দেরি না করে শুরু করা যাক চোখে নিচে কালো দাগ ওফোলাভাব দূর করার সহজ উপায় এবং চোখের নিচে কালো দাগ পড়ার কারণ সম্পর্কে । আপনি যদি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে নিশ্চয়ই জানতে পারবেন ।

পেজ সূচিঃ চোখের নিচের কালো দাগ ও ফোলাভাব দূর করার সহজ উপায় জেনে নিন

চোখের নিচে কালো দাগ পড়ার কারণ

বেশিরভাগ সময়ই আমরা আমাদের চোখের নিচে কালি ঢাখার জন্য কনসিলার ফাউন্ডেশন কিনে কারি কারি টাকা খরচ করি কিন্তু কখনোই কি আমরা আমাদের চোখের নিচে কেন কালো কালি জমে তার কারণ খুঁজে বেড় করার চেষ্টা করেছি ? আমাদের চোখের নিচের ত্বক অনেক বেশি স্পর্শকাতর এবং এর নিচে অনেক ছোট ছোট রক্তনালী বয়ে গেছে যারা আস্তে আস্তে বড় হতে থাকে এবং চোখের নিচে ত্বক

 কালো হতে থাকে । চোখের নিচের অংশে ফ্লুইড জমা হতে থাকার কারণে চোখের নিচে ফুলে যেতে থাকে এবং চোখের নিচে কালি পড়ে । এর পিছনে অনেকগুলো কারণ আছে আপনি জেনে অবাক হবেন যে , ঘুম না হওয়া , কম্পিউটারের মনিটরের সামনে বসে থাকাই চোখের নিচে কালি পড়া কিংবা চোখ ফুলে যাওয়া প্রাথমিক কারণ নয় । বরং নাসারব্দ্রিতে  সমস্যা , বংশগত সমস্যা , এলার্জি , মুত্র

 আরো পড়ুনঃ হাঁপানির কারণ ও চিকিৎসা - হাঁপানি বা এজমা কি ?

 গ্রন্থিতে সমস্যা কিংবা রক্ত চলাচলের সমস্যা থাকার কারণেও চোখের নিচে কালো দাগ পরে । মূলত চোখের নিচে কালি হওয়ার পিছনে তিনটি কারণ থাকে ।

  1. চাপ
  2. পর্যাপ্ত ঘুম না হওয়া
  3. পানি শূন্যতা
চাপঃ চোখের নিচে কালি পড়ার খুব প্রচলিত একটি কারণ হলো কোনো কারণে খুব বেশি চাপে থাকা ।

পর্যাপ্ত ঘুম না হওয়াঃ কেউ যদি প্রতিদিনে কমপক্ষে ৮ ঘন্টা না ঘুমায় তাহলে তার চোখের নিচে খালি করা সম্ভব না থাকে ।

পানি শূন্যতাঃ শরীর থেকে অনেক বেশি মাত্রায় পানি বেরিয়ে গেলে ত্বক শুকনো এবং শরীর দুর্বল হয়ে যায় । এর ফলে চোখের নিচে কালো করে ।

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার সহজ উপায়

এখানে যে ধরনের সমাধানের কথা বলা আছে সেগুলো যে সব সময় কাজে লাগবে তা নয় । তবে এটা কোন ক্ষতি করার কারণ হবে না । আসুন জেনে নেই কিভাবে প্রাকৃতিক উপায়ে চোখের নিচে কালি দূর করা যায় । কয়েক টুকরা শসা এবং আলু নিন ঠান্ডা পানিতে এগুলো এমন ভাবে পেস্ট করে নিন যাতে একটি তরল মিশ্রণ তৈরি হয় । কিছু তোলা এই মিশ্রণে ভিজিয়ে নিন এবং চোখের নিচে 15 থেকে 20


 মিনিট লাগিয়ে রাখুন । এতে আপনার চোখের নিচে কালো দাগ কমে যাবে চোখের নিচে যেখানে কালি পরেছে সেখানে আমলকী তেল লাগিয়ে ঘুমাতে যেতে পারেন । তাহলে চোখের নিচের কালি কমে যাবে বলে আশা করা যায় । মাল্টিভিটামিন খেলে ক্যালসিয়াম এবং ম্যাগনেশিয়াম খাওয়ার ফলে চোখের নিচে কালি দূর করতে সাহায্য করে । বিভিন্ন ধরনের এলার্জির ওষুধ নাসারিনদের সমস্যা দূর করতে পারে ।

 লবণ কম খেলে এবং ধূমপান ছেড়ে দিলে রক্ত চলাচল বাড়ে । যদি আপনার চোখ কচলানোর অভ্যাস থাকে তাহলে সেটি বাদ দিন । কেননা এটি আপনার চোখে নিচের রক্ত কনা গুলোকে ক্ষতিগ্রস্ত করে । উপরে আমরা আলোচনা করেছি চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার সহজ উপায় এবং নিচে আমরা আলোচনা করব চোখের নিচে ফোলা ভাব দূর করার সহজ উপায় সম্পর্কে তাই আপনি যদি নিজের অংশটুকু মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে নিশ্চয়ই জানতে পারবেন ।

চোখের নিচে ফোলাভাব দূর করার সহজ উপায়

প্রিয় পাঠক আমরা এখন আলোচনা করব চোখের নিচে ফোলা ভাব দূর করার সহজ উপায় সম্পর্কে তাই আপনি যদি জানতে চান চোখের নিচে ফোলা বাব কিভাবে দূর করা যায় তাহলে এই অংশটুকু মনোযোগ সহকারে পড়ুন ।সকালে ঘুম থেকে উঠেই চোখে ঠান্ডা পানি ঝাপটা দিলে অনেক উপকার পাওয়া যায় এবং এটি চোখের নিচের ফোলাভাব কমাতে সাহায্য করে । ব্যবহার করা টিব্যাগ সারারাত ফ্রিজে


 রেখে পর দিন সকালে চোখে পনেরো মিনিট রাখলে এটি খুব দ্রুত কাজে দেই । অবস্থা যদি খারাপ থেকে খারাপের দিকে যায় তাহলে সব সময় চোখে কনসিলার ব্যবহার করুন । যতটা সম্ভব কম মেকআপ ব্যবহারের চেষ্টা করুন । আর অবশ্যই প্রতিদিনে কমপক্ষে ৮ ঘন্টা ঘুমানোর ব্যাপারে কোন কম্প্রোমাইজ করবেন না ।

চোখে কিছু পড়লে প্রাথমিক চিকিৎসা

  • চোখে পানির ঝাপটা দেওয়া অথবা এক গ্লাস পরিষ্কার পানিতে চোখ ডুবিয়ে পিটপিট করতে থাকা যাতে চোখ থেকে ধুলাবালি বা অন্য কিছু থাকলে বের হয়ে যায় ।
  • চোখের উপরে পাতায় কিছু আটকালে ওই পাতায় লোমের দিকে একটু টেনে ধরে তা নিচের দিকে পাতার উপর দিয়ে আলতো ভাবে কয়েকবার উঠানামা করা যেতে পারে তাহলে ওই জিনিস বেরিয়ে আসতে পারে ।
  • ব্যথা কমাতে একটি কাঠি তে গরম পানি নিয়ে তাতে পরিষ্কার তুলা বা রুমাল ভিজিয়ে গরম সেক দেয়া ।
  • এই অবস্থায় বরং চোখ বন্ধ করে পরিষ্কার ব্যান্ডেজ দিয়ে যত শীঘ্রই সম্ভব একজন চক্ষু বিশেষজ্ঞ পরামর্শ  নেওয়া ।

  শেষ কথা 


প্রিয় পাঠক আপনি যদি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পুরো আর্টিকেলটি পড়ে থাকেন তাহলে নিশ্চয়ই জানতে পেরেছেন চোখের নিচের কালো দাগ ও ফোলা ভাব দূর করার সহজ উপায় । আরো জানতে পেরেছেন চোখের নিচে কালো দাগ পড়ার কারণ এবং চোখে কিছু করলে প্রাথমিক চিকিৎসা সম্পর্কে । তথ্যবহুল এই আর্টিকেলটি যদি আপনার কাছে ভালো লেগে থাকে তাহলে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করবেন । 


Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url