চুলের যত্ন- সৌন্দর্য পরামর্শ সম্পর্কে জেনে নিন

 আপনার কালো চুল কি দিন দিন খয়রি বা লাল হয়ে যাচ্ছে? তাহলে এবার সমাধান হবার সময় এসে গেছে । আপনি যদি মনোযোগ সহকারে পুরো আর্টিকেলটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়েন তাহলে আপনি আপনার লাল চুল এর যত্ন ও সৌন্দর্য কিভাবে বাড়াবেন তা আলোচনা করা হবে ।

এই সমস্যাটা আজকাল অনেকের মধ্যেই খুব দেখা যাচ্ছে । মনে রাখবেন যদি আপনার চুলের প্রাকৃতিক রং কালো হয় তবে আপনার চুল আপনি আপনি লাল হয়ে যাওয়ার সাধারণ ঘটনা নয় । তাহলে চলুন দেরি না করে শুরু করা যাক কি কি কারনে চুল লাল হতে থাকে এই বিষয়বস্তুগুলো এবং এর যত্ন কিভাবে নিবেন ।

কনটেন্ট সূচিপত্র ঃ চুলের যত্ন- সৌন্দর্য পরামর্শ জেনে নিন

  • কি কি কারনে চুল লাল হতে থাকে
  • চুল লাল হয়ে গেলে আর কি প্রতিকারক ব্যবস্থা নিবেন
  • হোম রেমেডি
  • শেষ কথা

  • কি কি কারনে চুল লাল হতে থাকে
  1. চুলের ড্যামেজ বা অপুষ্টির কারণে চুল কালো থেকে লাল হয়ে যায় । সূর্যের রশনির ক্ষতিকর ইউবি রায় আমাদের চুলের ড্যামেজ করে আর চোখ লাল করার জন্য একটা বিশেষ কারণ ।
  2. যে পানি আপনি ব্যবহার করেছেন সেটাও একটা বিশেষ কারণ হতে পারে । পানিতে ক্লোরিন বা আয়রন থাকলে চুলের ভালো রকমের ক্ষতি করে ।
  3. আপনি যে প্রোডাক্ট চুলে লাগান তাতে যদি পেরক্সসাইট থাকে সেটা চুলের ভীষণ ক্ষতি করে ।
  4. চুলে ভীষণ গরম কিছু লাগালে যেমন হেয়ার টেইটনার অথবা হেয়ার কালার এসব বেশি ব্যবহার করলে চুল বাদামী রঙের হতে থাকে ।
  5. চুলে অনেক বেশি পরিমাণে আর ঘন ঘন মধু লাগালেও চুলে তার স্বাভাবিক রং হারিয়ে ফেলি । 
  6. প্রিয় পাঠক আপনি নিচে বুঝতে পেরেছেন যে কি কি কারনে চুল লাল হতে থাকে এতক্ষণ আমরা তা নিয়ে আলোচনা করেছি । আমরা আলোচনা করব চুল লাল হয়ে গেলে আর কি প্রতিকার ব্যবস্থা নিবেন । তাহলে চলুন দেরি না করে শুরু করা যাক নিজের আলোচনা গুলো । 
  • চুল লাল হয়ে গেলে আর কি প্রতিকারক ব্যবস্থা নিবেন
সমস্যা যখন আছে তার প্রতিকারও আছে কিছু সাধারণ নিয়ম মেনে চললে কিন্তু সমস্যা হারানো যাবে । প্রিয় পাঠক এখন আমরা আলোচনা করব চুল লাল হয়ে গেলি আর কি প্রতিকার ব্যবস্থা নিবেন । তাহলে চলুন দেখে নেয়া যাক এর প্রতিকার গুলো-

  1. রোদে বের হওয়ার আগে গোসলের পরে চুলে লাগিয়ে নিতে হবে লিভ অন কন্ডিশনবা হেয়ার সেরাম ।  এটা চুলকে রোদ আর পলিউশনের হাত থেকে আপনার চুলকে বাঁচাবে ।
  2. যদি সারাদিন বা অনেক সময়ের জন্য রোদে বের হতে হয় তাহলে মাথাটা একটা কাপ দিয়ে বা ওড়না দিয়ে ভালো করে ডেকে নিতে হবে । আপনি ব্যবহার করতে পারেন foral কাপ এটি আপনাকে দারুন stylish দেখাবি আর আপনি সবার মধ্যে মনি হয়ে উঠবেন । একেই বোধ হয় বলে রথ দেখা আর কলা বেচা মানে স্টাইল আর স্বাস্থ্য দুটোই একসাথে ।
  3. চুলের জন্য কেমিক্যাল প্রোডাক্ট ব্যবহার না করে হারবাল প্রোডাক্ট ব্যবহার করতে হবে ।
  4. ভেজা চুলে রাস্তায় বের হবেন না । এতে বাইরের দুলু-ময়লার সব চলে আটকে থাকবে আর এর ফলে চুল রুক্ষ আর ফিজি হয়ে যাবে । তাই বাইরে বের হওয়ার আগে চুল শুকিয়ে বের হতে হবে । তাই বলে হেয়ার ডায়ার দিয়ে চুল শুকানো উচিত নয় । চুল শুকানোর জন্য সেরাম লাগিয়ে নিয়ে মাঝে মাঝে মোটা চিরুনি দিয়ে চেচড়াতে হবে এতে চুল শুকিয়ে যাবে ।
  5.  সান  ডেমেজের হাত থেকে বাঁচতে কাঁচঅবশ্যই ছাতা ব্যবহার করতে হবে । অনেকেই আছেন যারা ছাতা ব্যবহার করেন না কিন্তু আমাদের দেশের এরকম ছাতা ব্যবহার অতি অবশ্য ।
  6. এটা বলার দরকার রাখে না কিন্তু হেলদি ডায়েট অবশ্যই বজায় রাখতে হবে আর প্রচুর পরিমাণ পানি পান করতে হবে ।
প্রিয় পাঠক এতক্ষণ আমরা আলোচনা করেছি কি কি কারণে চুল লাল হতে থাকে এবং চুল লাল হয়ে গেলে এর পত্রিকার মূলক ব্যবস্থা কি আপনি যদি উপরের অংশটুকু করে থাকেন তাহলে নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন । নিচে আমরা আলোচনা করব হোম রিমেডি নিয়ে ।

  • হোম রেমেডি
  1. শ্যামপুর সাথে এটুকু কমিশিয়ে নিয়ে লাগানো যেতে পারে । চুল ধোয়ার জন্য সয়া সস আর অ্যাপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে এই মিশ্রণটা দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে ।
  2. সপ্তাহে একদিন করে প্রোটিন রিচ হেয়ারমাক্স লাগাতে হবে । এর জন্য একটা ডিম ফেটিয়ে নিয়ে এর সাথে এক কাপ টক দই ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে । এবারে এই মিশ্রণটাকে ৩০ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন । এভাবে শ্যাম্পু করার আগে এটা লাগে নিন ও কম করে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন ।
  • শেষ কথা
প্রিয় পাঠক এতক্ষণ আমরা আলোচনা করি যে কি কি কারণে চুল লাল হতে থাকে এবং চুল লাল হলে কি প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা নিবেন ও হোম রেমেডি সম্পর্কে । আপনি যদি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পুর আর্টিকেলটি পড়ে থাকেন তাহলে নিশ্চয়ই জানতে পেরেছেন । তত্ত্ববহুল এই আর্টিকেলটি আপনার কাছে যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইটি ভিজিট করবেন ।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url