পেটে কৃমি হলে করণীয়-কৃমি কিভাবে ছড়ায় জেনে নিন

 কৃমি হচ্ছে এক ধরনের পরজীবী প্রাণী , যা মানুষ ও অন্যান্য প্রাণীর দেহে বাস করে সেখান থেকে খাবার গ্রহণ করে বেঁচে থাকে । প্রিয় পাঠক আপনি যদি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে পেটে কৃমি হলে করণীয় কি এবং কিমি কিভাবে ছাড়াই এর সমস্ত বিষয় জানতে পারবেন ।


আরো জানতে পারবেন কৃমি হলে কি কি লক্ষণ দেখা দিতে পারে আমাদের মাঝে । এই আর্টিকেলে আমরা আরোআলোচনা করব কৃমি হলে আমাদের শরীরে কি কি ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে । কৃমি হলে আমরা এর প্রতিকার কিভাবে করব তা নিয়েও আলোচনা করব । তাহলে চলুন দেরি না করে শুরু করা যাক আজকের আর্টিকেলটি ।

পেজ সূচিপত্রঃপেটে কৃমি হলে করণীয়-কৃমি কিভাবে ছড়ায় জেনে নিন

পেটে কৃমি হলে কি কি লক্ষণ দেখা দিতে পারে

কৃমি কিভাবে ছড়ায়

কৃমি কিভাবে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে

পেটে কৃমি হলে কিভাবে প্রতিকার করবেন

শেষ কথা

  • পেটে কৃমি হলে কি কি লক্ষণ দেখা দিতে পারেঃ

 প্রিয় পাঠক আপনি এখন জানতে পারবেন দেখা দিতে পারে পেটে কৃমি হলে কি কি লক্ষণ দেখা দেয় কৃমি হলে কিছু কিছু উপসর্গ দেখা দেয় ।যেমন-বমি , বমি ভাব , পেট ব্যথা , পেট মোটা এবং কোন , কোন কৃমিতে পায়খানার রাস্তায় পাশে চুলকানি হতে পারে । কৃমি হলে সাধারণত অপুষ্টি দেখা দেয় । রক্তশূন্যতা দেখা দেয় । হুক ওয়ার্মের একমাত্র খাদ্য হচ্ছে আক্রান্ত রোগীর রক্ত । অনেক সময় ভক্ত
 কৃমি এক মুখ শিশুদের অ্যাপেন্ডিক্স এর মধ্যে প্রবেশ করে। ফলে এপেন্ডিসাইটিস এর মত উপসর্গ দেখা

 দেয় । শিশুর নাক মুখ দিয়েও কিরমি পড়তে পারে । এছাড়া অন্তর ফুটো করে মারাত্মক অবস্থায় সৃষ্টি করতে পারে । তাই উপরোক্ত উপসর্গ দেখা দিলে চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন । প্রিয় পাঠক এতক্ষণ আমরা আলোচনা করেছি যে পেটে কৃমি হলে কি কি লক্ষণ দেখা দিতে পারে নিশ্চয়ই আপনি জানতে পেরেছেন । নিচে আমরা আলোচনা করব কৃমি কিভাবে ছড়ায় ।

  • কৃমি কিভাবে ছড়ায়
প্রিয় পাঠক এখন আমরা আলোচনা করব যে কৃমির কিভাবে ছড়ায় । তাহা যদি আপনি ভালোভাবে জানতে চান তাহলে নিজের অংশটুকু পড়ুন । কৃমির ডিম খাবার  ,পানি  , বাতাস , মল , বিড়াল ও গৃহপালিত  পশুর শরীর বাথরুমের কোমড দরজা ও হাতলে মিশে থাকে । কৃমির ডিম সেখান থেকে নাক মুখ ও বায়ু পথ দিয়ে মানুষের শরীরে প্রবেশ করে । শরীরে প্রবেশ করার পর অন্তে এরা বংশবিস্তার

 করে সেখান থেকে কখনো কখনো শরীরের অন্যান্য জায়গায় ছড়িয়ে পড়ে । প্রিয় পাঠক এতক্ষণ আমরা আলোচনা করেছি যে কৃমি কিভাবে ছড়ায় আপনি যদি মনোযোগ সহকারে পড়ে থাকেন তাহলে নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন । নিচে আমরা আলোচনা করব কৃমি হলে আমাদের শরীরে কিভাবে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব ।

  • কৃমির ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে
কৃমি মানুষের শরীরে নানা ধরনের বিরূপ প্রভাব ফেলি এর মধ্যে রয়েছে-
  • পেটে ব্যথা
  • বমি
  • শরীর দুর্বল লাগা
  • ডায়রিয়া
  • রক্তশূন্যতা
  • ওজন কমে যাওয়া ইত্যাদি ।
প্রিয় পাঠক আপনি নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন যে কৃমি আমাদের শরীরে কিভাবে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে । নিচে আমরা আলোচনা করব পেটে কৃমি হলে এর প্রতিকার মুলক কি কি ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে তাই দেরি না করে নিজের অংশটুকু করে ফেলুন ।

  • কৃমি হলে কিভাবে প্রতিকার করবেন
প্রিয় পাঠক এখন আমরা আলোচনা করব যে পেটে কৃমি হলে এর প্রতিকার কিভাবে করবেন । কয়েকটি  ঘরোয়া উপায়ে পেটি কৃমি দূর করা যায় । যেমনঃ
  • সকালে খালি পেটে দুই তিন কুয়া কাঁচা রসুন খেলে কৃমি মরে যায় । কাচা রসুন এন্টিবায়োটিক এর কাজ করে । প্রায় ২০ ধরনের ব্যাকটেরিয়া এবং ৬০ ধরনের ফাঙ্গাস মেরে ফেলতে পারে রসুন । তাই কয়েক দিন সকালে নিয়মিত দুই তিনটি করে কাঁচা রসুন চিবিয়ে খেলে ক্রিমি মরে যায় ।
  • এছাড়া লবঙ্গ খাওয়া যেতে পারে । লবঙ্গ কলেরা ম্যালেরিয়া যক্ষাকে প্রতিরোধ করতে পারে । সারাক্ষণ একটি বা দুটি লবঙ্গ মুখে রাখলে পেটের ব্যাকটেরিয়া ভাইরাস ফাঙ্গাস ইত্যাদি মরে যায় ।
  • পেটের যেকোনো সমস্যা দূর করতে পেঁপের চেয়ে ভালো আর কিছু হয় না । যেকোনো ধরনের কৃমি তাড়াতে তাই পাকা পেঁপের বীজ গুরু করে মধুর সাথে মিশিয়ে খেতে হবে । ভালো ফল পেতে মধুর সাথে পাকা পেঁপে খাওয়া যেতে পারে ।
  • পেটের যে কোন সমস্যা যেমন এসিডিটি পেটে ইনফেকশন খাদ দেওয়ার জন্য না হওয়া ইত্যাদি দূর করতে আদার জুড়ি মেলা ভার । তাই এই ধরনের সমস্যায় আদার রস খাওয়া যেতে পারে ।
  • এছাড়া এক চা চামচ শসার বীজ গুঁড়ো করে কাঁচা হলুদের সাথে মিশিয়ে খেলে পেটের ফিতা কৃমি থাকলে তা মরে যায় । এসব প্রাকৃতিক উপায়ে অবলম্বনী দূর না হলে চিকিৎসকের পরামর্শে পুরো পরিবার একসাথে কৃমির ওষুধ সেবন করতে হবে ।
প্রিয় পাঠক হয়তো আপনি বুঝতে পেরেছেন কিভাবে পেটে কৃমি হলে তা প্রতিরোধ করতে হয় ।

  • শেষ কথা
আপনি যদি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ে থাকেন তাহলে নিচে বুঝতে পেরেছেন যে পেটে কৃমি হলে কি করনীয় কিভাবে কিরমিক ছড়ায় কিভাবে তা প্রতিরোধ করবেন । তথ্যবহুলে আর্টিকেলটি যদি আপনার কাছে ভালো লেগে থাকে তাহলে নিয়মিত আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করবেন ধন্যবাদ।

 
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url