উচ্চ রক্তচাপ কমানোর উপায় কি

 প্রিয় পাঠক আজকের পোস্টে আমরা উচ্চ রক্তচাপ কমানোর উপায় নিয়ে আলোচনা করব। উচ্চ রক্তচাপ যেমন শরীরের জন্য ক্ষতিকর। যা আমাদের মারাত্মক রোগের দিকে নিয়ে যাই। তাই আজকে আমরা উচ্চ রক্তচাপ কমানোর উপায় গুলো নিয়ে নিচে করণীয় গুলু জানবো।


আপনি যদি উচ্চ রক্তচাপ কমানোর উপায় সম্পর্কে জানতে চান তাহলে সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। তাহলে চলুন দেরি না করে উচ্চ রক্তচাপ কমানোর উপায় কারণ ও করণীয় সম্পর্কে জেনে নিন।

পেজ সূচিপত্রঃ উচ্চ রক্তচাপ কমানোর উপায় কি? উচ্চ রক্তচাপ কি ?

  •  উচ্চ রক্তচাপ কি কোন জটিল ব্যাধি।        
  • উচ্চ রক্তচাপ হলে কি কি জটিলতা হতে পারে ।
  • উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমাতে কি করা উচিত।
  • উচ্চ রক্তচাপ হলে কি চিকিৎসা করাতে হবে।
  • উচ্চ রক্তচাপ কামাতে কি কি খাবার এড়িয়ে চলতে হবে।
 উচ্চ রক্তচাপ কমানোর উপায় কি? উচ্চ রক্তচাপ কি ?

বিভিন্ন বয়সের সঙ্গে সঙ্গে একেক জন মানুষের শরীরে উচ্চ রক্তচাপের মাত্রা ভিন্ন এবং মানুষের ক্ষেত্রে বিভিন্ন সময়ে স্বাভাবিক এর রক্তচাপ বিভিন্ন রকম হতে পারে। উত্তেজনা, দুশ্চিন্তা, অধিক পরিশ্রম ও ব্যায়ামের ফলে উচ্চ রক্তচাপ বাড়তে পারে। ঘুমের সময় এবং বিশ্রাম নিলে উচ্চ রক্তচাপ কমে যায়। উচ্চ রক্তচাপে পরিবর্তন স্বাভাবিক নিয়মের মধ্যে পড। বয়স যত কম উচ্চ রক্তচাপ তত কম হয়। যদি কারো উচ্চ রক্তচাপ স্বাভাবিক মাত্রায় বেশি হয় এবং অধিকাংশ সময় এমন কি বিশ্রামকালীন বেশি থাকে তবে ধরে নিতে হবে তিনি উচ্চ রক্তচাপের রোগী।

  • উচ্চ রক্তচাপ কি কোন জটিল ব্যাধি
উচ্চ রক্তচাপ ভয়ংকর পরিণতি ডেকে আনতে পারে। অনেক সময় উচ্চ রক্তচাপের কোন প্রাথমিক লক্ষণ দেখা যায় না। নীরবে উচ্চ রক্তচাপ শরীরে বিভিন্ন অংশে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। এজন্যই উচ্চ রক্তচাপকে নীরব ঘাতক বলা যেতে পারে। অনিয়ন্ত্রিত এবং চিকিৎসা বিহীন উত্তর রক্তচাপ থেকে মারাত্মক শারীরিক জটিলতা দেখা দিতে পারে।
  • উচ্চ রক্তচাপ হলে কি কি জটিলতা  হতে পারে ।
উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রিত না থাকলে শরীরে গুরুত্বপূর্ণ চারটি অঙ্গ মারাত্মক ধরনের জটিলতা হতে পারে। যেমন- হৃদপিণ্ড, কিডনি, মস্তিষ্ক ও চোখ।

  • উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমাতে কি করা উচিত
জীবনযাত্রার পরিবর্তন এনে উচ্চ রক্তচাপ এর ঝুঁকি কমানো সম্ভব। অতিরিক্ত ওজন কমাতে হবে। কম চর্বি ও কম কলেস্টেরলযুক্ত খাবার গ্রহণ করতে হবে। যেমন-খাসি, গরুর মাংস, মগজ গিলা ডিম কম খেতে হবে। বেশি আঁশযুক্ত খাবার গ্রহণ করা ভালো। তরকারিতে প্রয়োজনীয় লবণের বাইরে অতিরিক্ত লবণ পরিহার করতে হবে। মদ পান পরিহার করতে হবে। সকাল সন্ধ্যা হাঁটাচলা সম্ভব হলে দৌড়ানো হালকা ব্যায়াম করতে হবে। লিফটে না চড়ে  সিঁড়ি ব্যবহার করতে হবে। ধূমপান অবশ্যই বর্জনীয়। তামাক পাতা জর্দা গোল লাগানো ইত্যাদি পরিহার করতে হবে।। যাদের ডায়াবেটিস আছে তা অবশ্যই নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। মানসিক ও শারীরিক চাপ সামলাতে হবে। নিয়মিত চিকিৎসকের কাছে গিয়ে উচ্চারিত চাপ পরীক্ষা করানো উচিত।
  • উচ্চ রক্তচাপ হলে কি চিকিৎসা করাতে হবে
উচ্চ রক্তচাপ সারে না একে নিয়ন্ত্রণ করা যায়। এর জন্য নিয়মিত ঔষধ সেবন করতে হবে। অনুক্রমে চিকিৎসকের নির্দেশ ছাড়াও ঔষধ সেবন বন্ধ করা যাবে না । অনেকেই আবার উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত  জানার পরে ওষুধ খেতেও নিহা প্রকাশ করে । কেউ কেউ এমন ভাবে যে উচ্চ রক্তচাপ তার জন্য দৈন্য দিন জীবন প্রবাহের কোন সমস্যা করছে না বা রোগের লক্ষণ লক্ষণ নেই, তাই উচ্চ রক্তচাপের ঔষধ খেতে চান না । এ ধারণাটাও সম্পূর্ণ ভুল । এ ধরনের রোগীরাই হঠাৎ হৃদরোগ বা স্টোক আক্রান্ত হয় । এমন কি মৃত্যু হয় ।

  • উচ্চ রক্তচাপ কমাতে কি কি খাবার এড়িয়ে চলতে হবে
  1. উচ্চ রক্তচাপ কমাতে পটাশিয়ামযুক্ত খাবার  
অনেকেই ধরে নেন যে উচ্চ রক্তচাপ হলে ট্যাবলেট সেবন করতে হবে । তা সময় সত্য নয় । আলু, মিষ্টি আলু, কলা মটরশুটি , কিসমিস , আলুবোখরা , টমেটো ইত্যাদি পটাশিয়ামযুক্ত খাবার খেলে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ থাকে । মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের নর্থ ওয়েস্টার্ন  বিশ্ববিদ্যালয় সমীক্ষা থেকে এই তথ্য জানা গেছে ।
   ২. জবা ফুলের চা

দিনে দুই থেকে তিন লিটার পানি নিয়মিত পান করলেও কিন্তু উচ্চ রক্তচাপ কমে , বিশেষ করে স্পেন পানিও ভেষজ চা । জানান জার্মানির এর প্রধান ডাক্তার মার্টিন 
 
   3. শরকরা বা কার্বোহাইড্রেট কম , সয়াবিন বেশি
ভাত ,নুডুলস বা এ ধরনের শর্করা জাতীয় খাবার পরিবর্তে বেশি করে সয়াবিন খাওয়া উচিত । খাওয়া যেতে পারে টুফু বা দুধের জিনিস । আমেরিকার স্বাস্থ্য বিষয়ক ম্যাগাজিন সার্কুলেশন জানাচ্ছে এই তথ্য।

  4. পছন্দের মিউজিক শুনুন 
ফ্লোরেন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানিয়েছেন পছন্দের গান বিশেষ করে সংগীত বা হালকা কোন মিউজিক উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে । তাছাড়া নিজে গান গাইতেও পারেন । সবচেয়ে বড় কথা মিউজিকটি হতে হবে নিজের পছন্দের । তবেই কেবল সুফল পাওয়া সম্ভব ।
  • শেষ কথা
উচ্চ রক্তচাপ কমানোর উপায় কি এবং উচ্চ রক্তচাপ কি তা আশা করি জানতে পেরেছেন । আপনি যদি উপরের উল্লেখিত তথ্যগুলো যথাযথভাবে অনুসরণ করেন তাহলে খুব সহজেই তা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন । আশা করি তথ্য ভুল আর্টিকেলটি আপনার কাছে অনেক ভালো লেগেছে এরকম আর্টিকেল আরো করতে নিয়মিত আমার ওয়েবসাইটটি ফলো করুন ।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url