মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়

মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়, সে সম্পর্কে যদি আপনি বিস্তারিত তথ্য জানতে চান, তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা, মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়? সেই বিষয় সম্পর্কে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। আশা করি নিম্ন বর্ণিত তথ্যগুলো আপনার উপকারে আসবে। চলুন দেখে নেয়া যাক, মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়? সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

পেজ সূচিপত্র: মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়

মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়

হঠাৎ করে যদি কোন মেয়ের হরমোন বৃদ্ধি পায়, তাহলে তার বেশ কিছু শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়, সে সম্পর্কে নিজে আলোচনা করা হবে। তাই মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নিম্ন বর্ণিত তথ্যগুলো পড়তে হবে।  
  • ​হঠাৎ ওজন বেড়ে যায়: মেয়েদের হরমোন জনিত সমস্যা দেখা দিলে হঠাৎ করে ওজন বেড়ে যেতে পারে। তাই যদি এই ধরনের কোন সমস্যা দেখা যায় তাহলে ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করা উচিত। কেননা এই ধরনের সমস্যা হরমোনের পরিবর্তনের কারণে হয়ে থাকে। 
  • ​ব্রেস্টের পরিবর্তন হয়: হরমোনের পরিবর্তনের কারণে কখনো কখনো ব্রেস্টের পরিবর্তন সাধিত হয়। তাই অনাকাঙ্ক্ষিত ভাবে যদি ​ব্রেস্টের পরিবর্তন লক্ষ্য করেন, তাহলে নিশ্চয়ই ডাক্তারের শরণাপন্ন হবেন। 
  • ​চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়: হরমোন বেশি হওয়ার কারণে অনেক সময় মাথার চুল ঝরে যায়। অধিক পরিমাণে মাথার চুল ঝরে গেলে তার চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। কেননা, চুল ঝরে যাওয়ার অন্যতম একটি কারণ হলো হরমোন বৃদ্ধি পাওয়া। 
  • মেজাজ খিটখিটে হয়: হরমোন বৃদ্ধি পেলে সাধারণত মেজাজ খিটখিটে হতে পারে। কেননা হরমনের প্রভাবে শারীরিক এবং মানসিক পরিবর্তন ঘটে। আর মানসিকপরিবর্তন ঘটার কারণে মেজাজ খিটখেটে হতে পারে। 
নিশ্চয়ই আপনি জানতে পেরেছেন যে, মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়। কেননা, মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়? সে সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য ইতোমধ্যে উপরে তুলে ধরা হয়েছে। নিচে থাইরয়েড বেড়ে গেলে কি হয় এবং থাইরয়েড হরমোন কমানোর উপায় সে সম্পর্কে আলোচনা করা হবে। এর পাশাপাশি থাইরয়েড হরমোনের কাজ কি এবং Tsh কমে গেলে কি হয়? সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হবে। 

থাইরয়েড বেড়ে গেলে কি হয়

থাইরয়েড বেড়ে গেলে বেশ কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। থাইরয়েড বেড়ে গেলে কি হয়, সে সম্পর্কে আর্টিকেলটির এই অংশে বিস্তারিত আলোচনা তুলে ধরা হবে। আর্টিকেলের এই অংশটি মনোযোগের সহিত পড়লে, আপনি জানতে পারবেন যে, থাইরয়েড বেড়ে গেলে কি হয়? তো আসুন দেখে নিয়ে যাক, থাইরয়েড বেড়ে গেলে কি হয়? সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। 
  • ক্রমাগত ওজন হ্রাস পায়।
  • হার্টবিট বেড়ে যায়।
  • ক্ষুধা বৃদ্ধি পায়।
  • শরীর দুর্বল হয়ে যায়।
  • প্রচুর পরিমাণে ঘাম ঝরে।
  • মাসিক ঋতুস্রাব অনিয়মিত হয়।
  • মাথাব্যথা হয়।
  • ঘুম কমে যায়।
  • শরীর গরম থাকে।
  • চামড়া পাতলা হয়ে যায়।
থাইরয়েড বেড়ে গেলে কি হয়, সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য হয়েছে। উপরে, মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয় সে সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। নিচে থাইরয়েড হরমোন কমানোর উপায়, থাইরয়েড হরমোনের কাজ কি এবং Tsh কমে গেলে কি হয়? সে সম্পর্কে আলোকপাত করা হবে। 

থাইরয়েড হরমোন কমানোর উপায়

থাইরয়েড বেড়ে গেলে কি হয়, তা নিশ্চয়ই জানতে পেরেছেন। কেননা সে সম্পর্কে উপরে আলোচনা করা হয়েছে। এখন প্রশ্ন হলো: থাইরয়েড হরমোন কমানোর উপায় কি? কেননা আপনি যদি, থাইরয়েড হরমোন নিয়ন্ত্রণে না আনেন, তাহলে বিভিন্ন ধরনের শারীরিক জটিলতায় পড়তে পারে। তাই নিচে, থাইরয়েড হরমোন কমানোর উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। থাইরয়েড হরমোন কমানোর উপায় সমূহ নিম্নরূপ: 
  • সামুদ্রিক মাছ খাওয়া: সামুদ্রিক মাছের প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ডি এবং ক্যালসিয়াম রয়েছে তাই সামুদ্রিক মাছ থাইরয়েড হরমোন কমানোর ক্ষেত্রে কার্যকর ভূমিকা পালন করে থাকে। সুতরাং আপনি যদি থাইরয়েড হরমোন কমাতে চান সে ক্ষেত্রে নিয়মিত সামুদ্রিক মাছ খেতে পারেন। 
  • নিয়মিত সবুজ শাকসবজি খাওয়া: নিয়মিত সবুজ শাকসবজি খেলে থাইরয়েড হরমোন নিয়ন্ত্রণে থাকে। তাই যদি আপনি আপনার থাইরয়েড হরমোন নিয়ন্ত্রণে রাখতে চান তাহলে নিয়মিত শাকসবজি খাবেন।
  • চিনি পরিহার করা: থাইরয়েড হরমোন কমাতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে চিনি পরিহার করতে হবে। কেননা, চিনি পরিহার না করে আপনি থাইরয়েড হরমোন নিয়ন্ত্রণে আনতে পারবেন না। সুতরাং থাইরয়েড হরমোন কমানোর অন্যতম পূর্ব শর্ত হলো চিনি পরিহার করা।
  • প্যাকেটজাত বা প্রসেসড খাবার পরিহার করা: প্যাকেটজাত বা টিন জাত খাবার পরিহার করতে হবে। কেননা প্রসেসড খাবার গ্রহণ করলে থাইরয়েড হরমোন বৃদ্ধি পেতে পারে। তাই সব ধরনের প্রসেসড ও প্রক্রিয়াজাত খাবার পরিহার করুন। 
  • ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার খাওয়া: ভিটামিন ডি থাইরয়েড হরমোন নিয়ন্ত্রণে আনতে সহায়তা করে। তাই থাইরয়েড হরমোন নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার বেশি বেশি খেতে হবে। ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবারের মধ্যে অন্যতম হলো: সামুদ্রিক মাছ, ডিম, গরুর কলিজা, বাদাম ইত্যাদি।  
উপরে উল্লেখিত থাইরয়েড হরমোন কমানোর উপায়, সমূহ জেনে রাখলে আশা করি আপনি উপকৃত হবেন। আর্টিকেলটির উপরের আংশে মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয় এবং থাইরয়েড বেড়ে গেলে কি হয়? সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা তুলে ধরা হয়েছে। নিচে থাইরয়েড হরমোনের কাজ কি এবং Tsh কমে গেলে কি হয়? সে সম্পর্কে আলোচনা করা হবে। 

থাইরয়েড হরমোনের কাজ কি

থাইরয়েড হরমোনের কাজ কি? সে সম্পর্কে যদি আপনি বিস্তারিত তথ্য জানতে চান তাহলে, নিম্ন বর্ণিত তথ্যগুলো আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা নিচে, থাইরয়েড হরমোনের কাজ কি? সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। নিম্ন বর্ণিত তথ্য গুলো মনোযোগের সহিত পড়লে, থাইরয়েড হরমোনের কাজ কি? তা জানতে পারবেন। 
  • স্নায়ুতন্ত্রের উপরে কাজ করে।
  • মানসিক বিকাশে সহায়তা করে।
  • দুগ্ধ নিঃসরণে কার্যকর ভূমিকা রাখে।
  • শ্বাসন ক্রিয়ায় সহায়তা করে।
  • হৃদপিন্ডের উপরে কাজ করে।
  • শরীরের চর্বি নিয়ন্ত্রণ করে।
  • শক্তি উৎপাদনে সাহায্য করে।
থাইরয়েড হরমোনের কাজ কি, আশা করি তা জেনেছেন। উপরে মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয়, থাইরয়েড বেড়ে গেলে কি হয় এবং থাইরয়েড হরমোন কমানোর উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। Tsh কমে গেলে কি হয় সেই প্রশ্নের সঠিক উত্তরের নিচে তুলে ধরা হবে। Tsh কমে গেলে কি হয়, তা নিম্নরূপ। 

Tsh কমে গেলে কি হয়

নিম্ন বর্ণিত তথ্যসমূহ মনোযোগ দিয়ে পড়লে Tsh কমে গেলে কি হয়, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। Tsh কমে শরীরে নানাবিধ সমস্যা দেখা দেয়। Tsh কমে গেলে শরীরের সাধারণত সমস্যাগুলো দেখা দিতে পারে সেগুলো নিচে তুলে ধরা হবে। চলুন দেখে নেয়া যাক, Tsh কমে গেলে কি হয়?
  • শরীরের বৃদ্ধি বাধা প্রাপ্ত হয়।
  • জিহ্বা আকারে বড় হয়।
  • বুদ্ধি পুরোপুরি বিকাশ হয়না।
  • হার্নিয়া হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
  • হৃদ স্পন্দন বৃদ্ধি পায়।
Tsh কমে গেলে কি হয়? সে সম্পর্কে ইতোমধ্যেই উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। এর পাশাপাশি উপরে, মেয়েদের হরমোন বেশি হলে কি হয় এবং থাইরয়েড হরমোন কমানোর উপায় সম্পর্কেও বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। এবং থাইরয়েড হরমোনের কাজ কি? তা উল্লেখ করা হয়েছে। ১৬৪১৩

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url