এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য - ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য

আপনারা কি এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য বা ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য এবং দামি রক্তের গ্রুপ সম্পর্কে জানতে চান? তাহলে আমাদের আজকের এই পোস্টটি আপনাদের জন্য। আজকে আমরা আলোচনা করব এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য, Ab+ রক্তের গ্রুপের বৈশিষ্ট্য বা ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে। এ পজেটিভ অর্থাৎ A+ রক্তের গ্রুপের বৈশিষ্ট্য এবং বি নেগেটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য গুলো বিষয়ে জানব।
তাহলে চলুন দেরি না করে জেনে নেই, এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য, ও নেগেটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য এবং ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে।

সূচিপত্রঃ এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য - ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য

এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য| A+ রক্তের গ্রুপের বৈশিষ্ট্য

মানুষের ব্যক্তিত্ব নাকি অনেকটাই নির্ভর করে থাকে তার রক্তের গ্রুপের উপর। জাপানের বিজ্ঞানীদের মতামতটা এমনই ছিল। এ কারণেই রক্তের ধরনকে 'কেটসুয়েকি-গাটা' বলে জাপানে বিবেচিত করা হয়ে থাকে। রক্তের বিভিন্ন গ্রুপ অনুযায়ী তারা নির্ধারণ করেন যে কে কি ধরনের চাকরি পাবেন বা কে কতটা ভাগ্যবান। এমনকি কে কেমন মানুষের সাথে সম্পর্কে জড়াবেন সেটাও নাকি রক্তের গ্রুপ জেনে বলে দেয়া সম্ভব হবে। তবে চলুন নিজের রক্তের গ্রুপের সাথে মিলিয়ে নিয়ে জেনে নিন আপনি কেমন। যাদের রক্তের গ্রুপ এ তারা অন্তর্মুখী, সংরক্ষিত, বুদ্ধিমান এবং সব সময় সৎ হয়ে থাকার চেষ্টা করেন।

আরো পড়ুনঃ মাথার রগে সমস্যা - মাথার রগে ব্যাথা

সব সময় তারা পারফেক্ট চলার এবং থাকার চেষ্টা করে থাকেন। অর্থাৎ তারা অতিরিক্ত সংবেদনশীল হয়ে থাকার চেষ্টা করেন। যাদের শরীরে এ গ্রুপের রক্ত বইছে, স্বভাবতই তাদের মস্তিষ্কের করটিসল হরমোন বেশি নিঃসরণ হয়ে থাকে। এ কারণে সব সময় তারা থাকেন মানসিক চাপের মধ্যে। খারাপ আচরণ কখনো কখনো করে থাকেন। সেজন্য চিত্রকর্মের মত বা যোগ্য ব্যায়ামের মত শিথিল কিছু কাজ কর্মের ভিতরে থাকা জরুরী এ গ্রুপের মানুষদের। কোন কাজ করবার আগে তারা দুবার চিন্তা করে থাকেন। সহজে কাউকে তারা বিশ্বাস করে উঠতে পারেন না।

ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য| ও নেগেটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য

ও পজেটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী কিংবা ও নেগেটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী জেনে নিন আপনি কেমন। যাদের রক্তের গ্রুপ ও নেগেটিভ কিংবা ও পজেটিভ তারা অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসী হয়ে থাকে। তারা দুর্দান্ত স্ট্যামিনা, দৃঢ় প্রতিজ্ঞা এবং সব সময় হাসিখুশির প্রকৃতির হন। এ ধরনের মানুষের প্রতি সহজেই আপনি নির্ভর করতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ দোয়া মাসুরা না পড়লে কি নামাজ হবে

তবে ও গ্রুপের মানুষেরা সবচেয়ে বেশি মেলামেশা করেন শুধু তাদের ভালোলাগার মানুষদের সাথে। কখনো কখনো তারা অন্যের প্রতি উদাসীন থেকে থাকেন এবং সব সময় বেশি ভাবেন নিজেকে নিয়ে। তবে কাজ করতে তারা কখনো অলস্যবোধ করে থাকেন না। তারা অনেকটাই কর্মঠ হন।

Ab+ রক্তের গ্রুপের বৈশিষ্ট্য

আমরা এবার জানব Ab+ রক্তের গ্রুপের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে। যাদের শরীরে মিশ্র রক্তের গ্রুপ রয়েছে, তাদের বৈশিষ্ট্যগুলো ও মিশ্র ধরনের। অন্তর্মুখী এবং বহির্মুখী উভয়ই হতে পারেন এ বি গ্রুপের মানুষেরা। তারা বেশি আগ্রহী হয়ে থাকেন কলা এবং বিজ্ঞান বিষয়ে। সম্ভবতই তারা উচ্চবিলাসী এবং চিন্তাশীল হয়ে থাকেন। তারা শান্তিপূর্ণ পরিবেশ পছন্দ করে থাকেন। তাদের আবেগের ভিত্তিতে ব্যক্তিত্বগুলো বিভিন্ন কর্মকান্ডের পরপরই দ্রুত পরিবর্তিত হয়ে থাকে। এমন মানুষেরা কখনো কখনো দ্বিমুখী আচরণ করে থাকে। তাদের ব্যক্তিত্বে তাদের রক্তের মতনই বিরল বৈশিষ্ট্য লক্ষ্য করা যায়।

বি নেগেটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য

নয় ভাগ শতকরা জনগোষ্ঠীর বি পজেটিভ এবং বি নেগেটিভ ব্লাড গ্রুপের ক্ষেত্রে মাত্র দুইভাগ এই হার। এই ব্লাড গ্রুপের মানুষেরা পরিকল্পনাবাদী, দক্ষ, সরল, স্বাস্থ্যবান, মনোযোগী, নমনীয়, মেধাবী, স্বাধীনতা চেতা, আবেগপ্রবণ, বাস্তববাদী এবং অধিক পরিমাণে রোমান্টিক হয়। অন্যদের তুলনায় বি গ্রুপের মানুষরা বেশি কৌতুহলী, সৃজনশীল এবং সক্রিয় হয়। বি গ্রুপের মানুষদের স্বভাবে যদিও স্বার্থপরতা থেকে থাকে। তারপরও তারা সবচাইতে বেশি যত্নশীল হয়ে থাকে। তারা স্বতন্ত্রবাদী ও মানসিকভাবে অনেক শক্ত হয়ে থাকেন।

দামি রক্তের গ্রুপ

এখন প্রশ্ন হচ্ছে পৃথিবীর সবচাইতে দামি রক্তের গ্রুপ কোনটা? অনেকে হয়তো মনে করতে পারে যে ও নেগেটিভ, বি নেগেটিভ কিংবা এবি নেগেটিভ। কিন্তু না, পৃথিবীর সবচাইতে দুর্লভ এবং দামি রক্তের গ্রুপ হচ্ছে " Bombay" রক্তের গ্রুপ। ১৯৫২ সালে Dr. Y M Bhende Bombay মানে আজকের মুম্বাই শহরের K.E.M নামের একটা হাসপাতালে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছিলেন একটা রোগীর। সেই রোগী তার রক্ত পরীক্ষা করে দেখা যায় যে সবার থেকে তার রক্তটা আলাদা। যে ব্লাড গ্রুপগুলো নিচে দেয়া হয়েছিল সেগুলোর কোনটার সাথেই তার মিল ছিল না। তারপর বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর জানতে পারা গেল যে, এটা একটা নতুন রক্তের গ্রুপ।

আরো পড়ুনঃ ঘুম ঘুম ভাব দূর করার উপায়

যেহেতু তৎকালীন Bombay শহরে এটা পাওয়া গেছে তাই এই ব্লাড গ্রুপের নাম রাখা হয়েছিল Bombay ব্লাড গ্রুপ। এটা এতটাই দুর্লভ যে দশ লাখ মানুষের মধ্যে মাত্র চার জন মানুষের পাওয়া যায়। এই রক্তের গ্রুপ সারা ভারতবর্ষ জুড়ে শুধুমাত্র ৪০০ জনের নাম নথিভুক্ত। তবে যদি আপনাদের ও এই গ্রুপের রক্ত হয়ে থাকে তাহলে একটু দেখেশুনে সাবধানে চলাফেরা করবেন। তবে ভয়ের কিছু নেই। অযথা রক্ত অপচয় করবেন না। দিনশেষে আমরা সবাই সমাজের কাছে সমাজের প্রতিটা ভাল কাজের জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এবং সবাই রক্তদান করে আমরা সমাজের কল্যাণ করব।

শেষ কথাঃ এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য - ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য

এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য এবং ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে জানতে হলে আমাদের পুরো পোষ্টটি ভালোভাবে পড়ুন, আশা করি সবকিছু ভালোভাবে বুঝতে পারবেন। এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য এবং ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে সবার আগে জানতে হলে আমাদের সাথেই থাকুন।

আজ আর নয়, এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য এবং ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে আপনার কোন কিছু জানার থাকলে আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন। আশা করি আমরা আপনার উত্তরটি দিয়ে দেবো। তাহলে আমাদের আজকের এই এ পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য এবং ও পজিটিভ রক্তের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে পোস্টটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে আপনার ফেসবুক ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইলে আমাদের পোস্টটি শেয়ার করতে পারেন। ধন্যবাদ। ২৩৭৬৬

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url